Short Motivational Story | ভাল সময় এবং খারাপ সময় আপনি তৈরী করেন | Bangla golpo


Short Motivational Story | ভাল সময় এবং খারাপ সময় আপনি তৈরী করেন | Bangla golpo



কোন এক মহান ব্যক্তি খুব সুন্দর একটি কথা বলেছিলেন - যে সময় হল এক অদ্ভুত বাস্তব। খারপ সময় হোক, আর ভাল সময়ই হোক দুটোই এক সময় পার হয়ে যায়। বেশিদিন থেমে থাকে না।

Positive stories bangla, bangla golpo, inspirational stories
Short motivational story - Time

হ্যালো বন্ধুরা আজকের গল্প ‘সময়’।

একবার ইউনানের রাজা কোন এক কারণে তার মন্ত্রীকে ফাঁসির হুকুম দিলেন। এবং ফাঁসি দেবার সময় ধার্য করলেন সন্ধ্যা ৬ টার সময়।

রাজা তার সৈনিকদের ডেকে বললেন – এক্ষুনি মন্ত্রীর বাড়িতে যাও, এবং তাকে খবর দাও যে তার ফাঁসির হুকুম হয়েছে। তাকে আজ সন্ধ্যা ৬ টার সময় ফাঁসিকাঠে ঝোলান হবে।

সৈনিকরা তৎক্ষণাৎ মন্ত্রীর বাড়িতে যায়। এবং চারি দিক থেকে মন্ত্রীর বাড়িকে ঘিরে ফেলে। এরপর দুজন সৈনিক বাড়ির ভতরে যায়। সেখানে গিয়ে তারা দেখে যে মন্ত্রী তার বন্ধু বান্ধব এবং আত্মীয় পরিজনের সাথে আনন্দ উৎসবে মেতে আছেন। পরে তারা জানতে পারে যে সেদিন মন্ত্রীর জন্মদিন ছিল।

ভাল ভাল খাবার রান্না হচ্ছিল, সুন্দর মিউজিক বাজছিল মানে সবমিলে এক দারুন আয়োজন। সবাই বেশ আনন্দ উপভোগ করছিলেন।

ঠিক এমন সময় এক সৈনিক মন্ত্রীর উদ্দেশ্যে জোর করে হাক দেয় এবং বলে - মন্ত্রীমশাই আজ আপনাকে রাজা ফাঁসির হুকুম শুনিয়েছেন। আপনাকে আজ সন্ধ্যা ৬ টার সময় ফাঁসিকাঠে ঝোলান হবে।

একথা শোনার পর সেই ঘরে থাকা সাবাই স্তব্দ হয়ে গেলেন। মিউজিশিন ও তাদের মিউজিক বাজানো বন্ধ করে দিল। যারা খাবার বানাচ্ছিল তার সেটা শুনে তাদের খাবার বানানো বন্ধ করে দিল। বন্ধু বান্ধব আত্মীয় পরিজন সবাই উদাস হয়ে একে অপরের দিকে চাইতে লাগল।

এবার মন্ত্রীমশাই একবার চারিদিকে চাইলেন এবং সবার উদ্দেশ্যে বললেন – উপরওয়ালা কে অনেক অনেক ধন্যবাদ যে উনি আমাকে সন্ধ্যা ৬ অব্ধি সময় দিয়েছেন। এবং রাজাকেও ধন্যবাদ আমাকে সন্ধ্যা ৬ অব্ধি সময় দেবার জন্য। তারপর বললেন দেখুন আজ আমার জন্মদিন, আর সন্ধ্যা ৬ টা বাজতে এখনো অনেক সময় বাকি। ততক্ষণ আমার আনন্দে মেতে থাকতে পারি এই উৎসব চালিয়ে যেতে পারি।

এটা শুনে উনার বন্ধুরা বললেন এটা তুমি কি পাগলের মত কথা বলছ। আজ সন্ধ্যায় তোমার ফাঁসি আর তুমি কিনা বলছ আনন্দ উৎসব চালিয়ে যেতে?

এই সব কথা চলতে চলতে মন্ত্রীমশাই সবাইকে রাজি করিয়ে আগে যেরকম উৎসব চলছিল ঠিক সেই সময়ে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করলেন। উনার বন্দুবান্ধব, আত্মীয় পরিজন উদাস হলেও আবার ধীরে ধীরে তারা উৎসবে মেতে উঠলেন। আবার খাবার বানানো শুরু হল, মিউজিক বাজান শুরু হল। আগের মতই উৎসব চলতে লাগল।

এদিকে রাজার সৈনিকরা রাজাকে এসে খরব দিলেন এবং বললেন – রাজামশাই আমরা মন্ত্রীমশাইকে ফাঁসির হুকুমের কথা শুনিয়েছি। কিন্তু এটা শোনার পরেও তিনি আগের মতই বন্দুবান্ধব, আত্মীয় পরিজনদের নিয়ে উনের জন্মদিনের আনন্দে উৎসবে মেতে আছেন।

এটা শুনে রাজা ভীষণ বিস্মিত হলেন। এবং তিনি সেটা নিজে চোখে দেখার জন্য তৎক্ষণাৎ মন্ত্রীর বাড়িতে উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন।

রাজা মন্ত্রীর এর বাড়িতে পৌঁছে দেখলেন, সত্যিই তো এখানে আনন্দ উৎসব চলছে এবং মন্ত্রী সবার সাথে আনন্দ উৎসবে মেতে আছেন। তিনি এবার মন্ত্রীকে ডেকে বললেন – আপনার মাথা খারাপ হয়ে যায়নিতো, আপনি ঠিক শুনেছেন তো- যে আজ সন্ধ্যায় আপনাকে ফাঁসিকাঠে ঝোলান হবে। আপনি কি সেটা বুঝতে পেরেছেন।

মন্ত্রী বলেলন – হ্যাঁ মহারাজ। আমি শুনেছি, আপনার আদেশ শিরধার্য। কিন্তু আজ আমর জন্মদিন। আর আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ আমাকে সন্ধ্যা ৬ অব্ধি সময় দেবার জন্য। যদি আপনি সন্ধ্যা ৬ অব্ধি সময় না দিতেন তো আজ আমি আমার বন্ধুদের সাথে কিভাবে জন্মদিন পালন করতাম? তো এখন আনন্দ করার সময়। এই সময়টুকুকে আমি কিভাবে নষ্ট করি। যতুটকু সময় পেয়েছি ততটুকু সময় তো খুশী থাকি, আনন্দ করি।

এটা শোনার পর রাজা আর থাকতে পারলেন না, তিনি মন্ত্রী কে জড়িয়ে ধরলেন এবং বললেন – হ্যাঁ বন্ধু এই দুনীয়ায় তোমার মত মানুষের বেঁচে থাকার অবশ্যই অধিকার রয়েছে। আর তোমেকে বাঁচতে হবে। যে মানুষ সময়ের মূল্যবোধ দিতে জানে, যে মানুষ কিছু বাকি না রেখে পুরপুরি জীবনের আন্দন উপভোগ করতে জানেন তার এই পৃথীবিতে অবশ্যই বেঁচে থাকা উচিত।

এই গল্পটা থেকে কি শিখলাম?

তো বন্ধুরা গল্পটা থেকে আমারা একটি অনেক বড় শিক্ষা পাই। জীবনে চলার পথে মাঝে মাঝে আমাদের এমন পরিস্তিস্থির মধ্যে পড়তে হয়, তাতে আমাদের মধ্যে এক আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। কিছুতেই মন খুশী হতে চায় না। সেই পরিস্তিস্থিকে সামাল দিতে আমরা হিমসিম খেয়ে যাই। দেখুন এই পরিস্তিস্থিকে সামাল দেওয়া পুরটাই আপনার নিজের হাতে।

তাই বলব কোনমতেই নিজেকে চাপার মধ্যে আনবেন না। পরিস্তিস্থিকে সামাল দিতে শিখুন। আপনি অবশ্যই আপনার লক্ষ্যে পৌছাবেন। আর বলব এমন কাজ করুন যা পুর দুনীয়া আপনার মত করতে চায়। কারন জীতবে তারাই যারা কিছু করে দেখাবে।

ইতিবাচক ভাবুন – ইতিবাচক বলুন – ইতিবাচক অনুভব করুন

Short Motivational Story | যে কোন কাজে আপনি একাই একশ | short stories with moral


বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

‘Freedoms Today’ নামে আমাদের আরেকটি YouTube channel আছে। যেখানে আমরা Network marketing-এর সম্বন্ধে ভিডিও বানিয়ে থাকি। আপনি যদি Network marketing-এর সম্বন্ধে জানতে চান এবং Network marketing শিখতে চান তো এই channel টি follow করতে পারেন। এবং আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে আপনি আমাদের website visit করতে পারেন।

Freedoms Today Website: http://www.freedomstoday.com/
Freedoms Today YouTube channel: https://www.youtube.com/FreedomsToday
Email: freedomstoday1@gmail.com



Comments