Motivational story | আপনি আপনার স্বপ্ন পূরন করুন, নাহলে অন্যকেউ আপনাকে তার স্বপ্ন পূরনের কাজে লাগাবে | Life changing stories

Motivational story | আপনি আপনার স্বপ্ন পূরন করুন, নাহলে অন্যকেউ আপনাকে তার স্বপ্ন পূরনের কাজে লাগাবে | Life changing stories


আপনি আপনার স্বপ্ন পূরন করুন, নাহলে অন্যকেউ আপনাকে তার স্বপ্ন পূরনের কাজে লাগাবে। আমরা সবাই স্বপ্ন দেখি। কেউ ছোট স্বপ্ন দেখি আবার কেউ খুব বড় স্বপ্ন দেখি। আর বড় স্বপ্ন যারা দেখে মানুষ তাদের নিয়ে হাসি ঠাট্টা করে। কারন তারা ভাবে এটা তাদের দ্বারা সম্ভব নয়। তো আজকের গল্পটা তাদের জন্য যারা অনেক বড় স্বপ্ন দেখেন এবং মানুষ যা নিয়ে হাসি ঠাট্টা করে।



Positive stories bangla, Life changing stories, positive stories, bangla golpo
Motivational story - Dream

আজকের গল্প - ‘স্বপ্ন’।

একটি বাচ্চা সরকারি স্কুলে পড়াশুনা করত। তার বাবা একজন খুব ধণী ব্যক্তির বাড়িতে চাকরের কাজ করতেন। বাচ্চাটি কখন কখন তার বাবার সাথে সেই ধণী ব্যক্তির বাড়িতে যেত, এবং দেখত তারা বাবা কি কাজ করে।

বাচ্চাটি বসে বসে শুধু দেখত কত বড় বাংলো বাড়ি, কত গুলি দামি দামি গাড়ি, কত নকর চাকর। সে দেখত তার বাবা সেখানে বড় বড় দামি গাড়ি গুলিকে ধোয়া মোছা করত। বাচ্চাটি তার বাবাকে দেখতে দেখতে ভাবত একদিন এমন আসবে যেদিন আমার বাবা এই গাড়ি গুলি আর ধোয়া মোছা করবে না, সেই গাড়িতে করে ঘুরে বেড়াবে।

একদিন তার স্কুলের শিক্ষক সব বাচ্চাদের বাড়ির কাজ দিলেন। তারা যেন তাদের স্বপ্নের উপর একটি রচনা লিখে নিয়ে আসে।

পরের দিন সব বাচ্চারাই তাদের স্বপ্ন নিয়ে রচনা লিখে নিয়ে এল এবং এই বাচ্চাটিও তার স্বপ্নের উপর রচনা লিখেছিল। সবাই খাতা জমা দিল।

শিক্ষক খাতা দেখার পর সব বাচ্চাদের দারুন নাম্বার দিলেন এবং উৎসাহিত করলেন। কিন্ত এই বাচ্চাটির পুর রচনাটা কেটে দিলেন এবং এক নাম্বারও দিলেন না। তাকে ফেল করিয়ে দিলেন।

বাচ্চাটি কিছুই বুঝল না যে শিক্ষক তার সাথে এরকম কেন করলেন। অতএব সে শিক্ষকের কাছে গিয়ে জিজ্ঞেস করল - স্যার আমি কি কিছু ভুল লিখেছি, যে আপনি আমাকে এক নাম্বারও দিলেন না।

শিক্ষক বললেন - তুমি তোমার যোগ্যতা অনুযায়ী কিছু লিখতে, এমন কিছু লিখতে যা তুমি হতে পারবে। কিন্তু তুমি এমন কিছু লিখেছ যা কখন হতেই পারে না। তুমি তোমার অবস্তা দেখ! তোমাদের খাওয়াই দুবেলা ঠিক মত জোটে না। আর তুমি লিখেছ তোমার কাছে দামি দামি গাড়ি থাকবে বড় বাংলো বাড়ি হবে। বোগাস! এটা কখন সম্ভব?

তারপর বললেন ঠিক আছে তোমাকে আরেকবার সুযোগ দিচ্ছি। তুমি বাড়ি যাও। আবার চিন্তা কর। এবং তোমার দ্বারা যেটা সম্ভব হবে সেটাই লেখি নিয়ে এস, তো তোমায় পাশ করিয়ে দেব।

বাচ্চাটি বাড়ি এল। সারা রাত ধরে সে ভাবতে লাগল কি লিখবে, কারন তার মাথাতে আর কিছুই আসছে না। সে শুধু সেটাই ভেবে চলেছে তার কাছে বড় বড় গাড়ি থাকবে, তার বাবা সেই গাড়ি করে ঘুরে বেড়াবে, বড় বাংলো বাড়ি থাকবে।

সুতরাং পরের দিন সে আবার সেই স্বপ্ন গুলোর কথাই লিখে নিয়ে স্কুলে গেল। এবং শিক্ষক গিয়ে বলল স্যার আপনি আমাকে ফেল করাতে চান তো ফেল করিয়ে দিন। আমি এই স্বপ্নগুলোকে পরিবর্তন করতে পারব না। কারন আমি যতবার ভেবেছি, দেখছি যে এগুলোই আমার স্বপ্ন।

শিক্ষক বললেন - তোমার যা ইচ্ছা! তাকে ফেল করিয়ে দিলেন।

এর পর বহু বছর কেটে গেল। একদিন সেই শহরের একটি নামি দামি প্রেক্ষাগৃহে একজন ব্যক্তি তার সফলতার কথা শোনাচ্ছিলেন।

সেই শিক্ষকও সেই দিন সেই প্রেক্ষাগৃহে উপস্থিত ছিলেন। উনার বয়েসও হয়ে গেছিল। তিনি নিচে সিটে বসে সেই ব্যক্তির কথা শুনছিলেন।

বক্তব্য শেষ হলে সেই ব্যক্তি স্টেজ থেকে নেমে শিক্ষকের কাছে এসে তার পা ছুঁয়ে প্রনাম করে বললেন – স্যার, চিনতে পারছেন আমি সেই বাচ্চা যাকে আপনি তার নিজের স্বপ্ন লেখার জন্য ফেল করিয়ে দিয়েছিলেন। শিক্ষক ছল ছল চোখে তার মাথায় হাত রাখলেন। শুধু বললেন- সাবাস!

এই গল্পটা থেকে কি শিখলাম?

তো বন্ধুরা আমরা এই ছোট গল্পটা থেকে এটাই শিখলাম যে জীবনে কিছুই অসম্ভব নয়, যদি আপনি বড় স্বপ্ন দেখতে পারেন। ইতিহাস বলছে যেসব মানুষ জীবনে সফল হয়েছেন তারা বড় স্বপ্ন দেখতেন এবং মানুষ একদিন তাদের নিয়ে হাসি ঠাট্টা করেছেন। কিন্তু তারা সফল হয়ে দেখিয়েছেন।

তাই বার বার বলব মানুষ আপনাকে নিয়ে যতই হাসা হাসি করুক। যদি জীবনে সফল হতে চান তো বড় স্বপ্ন দেখুন। আর এমন কিছু করুন যা পুর দুনিয়া আপনার মত করতে চায়। কারন জিতবে তারাই যারা কিছু করে দেখাবে।

ইতিবাচক ভাবুন – ইতিবাচক বলুন – ইতিবাচক অনুভব করুন

Motivational story | মা আসছেন আমাদের ইচ্ছাপূরণ করতে | Life changing stories | ইতিবাচক গল্প

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

‘Freedoms Today’ নামে আমাদের আরেকটি YouTube channel আছে। যেখানে আমরা Network marketing-এর সম্বন্ধে ভিডিও বানিয়ে থাকি। আপনি যদি Network marketing-এর সম্বন্ধে জানতে চান এবং Network marketing শিখতে চান তো এই channel টি follow করতে পারেন। এবং আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে আপনি আমাদের website visit করতে পারেন।

Freedoms Today Website: http://www.freedomstoday.com/

Freedoms Today YouTube channel: https://www.youtube.com/FreedomsToday

Email: freedomstoday1@gmail.com

Comments